আজ পণ্ডিতপ্রবর ভদন্ত প্রজ্ঞাবংশ মহাথের এর ৭২তম শুভ জন্মদিন-২০২১।

আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বৌদ্ধ সংঘমনীষা, অসংখ্য জাতীয় ও আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের রূপকার, বৌদ্ধ গবেষক, ত্রিপিটক অনুবাদের পথিকৃৎ পণ্ডিতপ্রবর ভদন্ত প্রজ্ঞাবংশ মহাথের মহোদয়ের ৭২তম জন্মদিন/২০২১ উপলক্ষে শ্রদ্ধাযুক্ত বন্দনা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করছি।

date-20/08/2021.

আজ পণ্ডিতপ্রবর ভদন্ত প্রজ্ঞাবংশ মহাথের এর ৭২তম শুভ জন্মদিন-২০২১।

আমার দেখা একজন প্রজ্ঞাবংশ মহাথের মহোদয়ঃ-

ভদন্ত প্রজ্ঞাবংশ মহাথের মহোদয় একটি নাম নয় একটি প্রতিষ্ঠান ও একটি বৌদ্ধ পাঠশালা। তিনি বাংলাদেশী বৌদ্ধ সমাজের একজন আলোক বর্তিকা। তিনি বর্তমানে সুদূর আমেরিকায় অবস্থান করে বুদ্ধের মানবতাবাদী, নৈর্বাণিক ধর্মের পূণ্যবান অনুসারী ও আচরকারীদের নিকট বুদ্ধের সদ্ধর্মের শিক্ষা প্রচার ও নির্বাণ লাভের একমাত্র উপায় ধ্যান শিক্ষাসহ ধর্মদানে রত আছেন। 

শ্রদ্ধেয় ভান্তের হাত ধরে বাংলাদেশে বহু জ্ঞানী গুণী ভিক্ষু সৃষ্টি হয়েছে। সৃষ্টি হয়েছে বহু বৌদ্ধ প্রতিষ্ঠান। তিনি একাধারে ত্রিপিটক বিশারদ, বহু গ্রন্থ প্রণেতা/লেখক, সুদেশক, সংগঠক এবং বৌদ্ধ গবেষক।

ভদন্ত প্রজ্ঞাবংশ মহাথের মহোদয়ের মত বহু প্রতিষ্ঠানের জনক/ রূপকার, বহু গ্রন্থ প্রণেতা/লেখক এবং জ্ঞানী গুণী ভিক্ষু তৈরীর কারিগরকে বাংলাদেশের বৌদ্ধ সমাজ বাংলাদেশে ধরে রাখতে পারেনি। শ্রদ্ধেয় ভান্তের চলে যাওয়ার ফলে বাংলাদেশের বৌদ্ধ পরিমন্ডলে ভান্তের শূণ্যস্থানের ফলে যে ক্ষতি হচ্ছে তা বাংলাদেশী বৌদ্ধদের অনেকে মর্মে মর্মে উপলব্ধি করছেন, হয়তো কিছু করতে পারছেন না।

তাছাড়াও বাংলাদেশের বর্তমান বড়ুয়া প্রজন্ম একজন জ্ঞানী ভিক্ষুর সান্নিধ্য লাভ থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। আধুনিক প্রযুক্তির কল্যাণে শ্রদ্ধেয় ভান্তেকে বৌদ্ধ ধর্মীয় কিছু অনুষ্ঠানে মাঝে মধ্যে অনলাইনে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়, সেটাই এখন আমাদের কাছে পরম পাওয়া।   

কখনো ভাবতে পারিনি শ্রদ্ধেয় ভান্তে রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা থেকে যাত্রা শুরু করে ক্রমান্বয়ে চট্টগ্রামের বিভিন্ন বৌদ্ধ জনপদ সমূহে ধর্ম সুধা বিলাতে বিলাতে চট্টগ্রামের দক্ষিণাঞ্চল তথা কক্সবাজার হয়ে এক সময় সুদূর আমেরিকায় চলে যাবেন! আসলে দাঁত থাকতে দাঁতের মর্ম বুঝা যায় না। যখন থাকে না তখন এর প্রকৃত মর্ম বুঝা যায়। 

বেশ কিছুদিন যাবৎ বৌদ্ধ ধর্মীয় অনেক ইস্যুতে বাংলাদেশের বড়ুয়া বৌদ্ধ সমাজের মধ্যে দ্বিমত পোষণের পরিস্থিতি বিরাজ করতে দেখা যাচ্ছে। আমার মনে হয়, ভদন্ত প্রজ্ঞাবংশ মহাথের মহোদয়ের মত জ্ঞানী অভিভাবক আমাদের মাঝে থাকলে সেই দ্বিমন পোষণ নীতি অনেকটাই সমাধান হতো। 

ছোট বেলা থেকে ভান্তের সাথে সাক্ষাৎ লাভের সুযোগ হয়েছে। স্বল্প সময়ে ভান্তের অনেক দেশনা ও আলোচনা অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছি এবং ভান্তের জ্ঞানগর্ব দেশনা শ্রবণ করেছি। কিন্তু বেশ কয়েক বছর যাবৎ দেখছি ভান্তে সুদূর আমেরিকায় অবস্থান করছেন। 

শ্রদ্ধেয় ভান্তে বাংলাদেশে অবস্থানকালীন যেসব ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন, বিশেষ করে যেসব কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন সেসব অনুষ্ঠানে প্রচুর শ্রদ্ধাবান উপাসক-উপাসিকার সমাগম হতে দেখা যেত এবং প্রতিটি অনুষ্ঠান শেষ হওয়া পর্যন্ত ধর্মীয় গারবতা, শ্রদ্ধা ও নিরবতা বজায় থাকত। 

ভান্তের মধুর ও স্পষ্টভাষী কন্ঠে ত্রিপিটকের আলোকে দেশনা যতক্ষণ চলমান থাকত ততক্ষণ শ্রদ্ধাবান উপাসক-উপাসিকারা মন দিয়ে ধর্ম দেশনা শ্রবণ করতেন এবং অনুষ্ঠান স্থল ত্যাগ করতেন না।

আজ শ্রদ্ধেয় প্রজ্ঞাবংশ মহাথের মহোদয়ের ৭২ তম শুভ জন্মদিন উপলক্ষে ভান্তেকে শ্রদ্ধাযুক্ত চিত্তে বন্দনা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করছি। সেই সাথে জন্মজন্মান্তরের পূণ্যের কাছে প্রার্থনা করছি শ্রদ্ধেয় ভান্তে যাতে নিরোগ ও দীর্ঘায়ু লাভ করে আমাদের মাঝে দীর্ঘদিন অবস্থান করেন। 

প্রতিটি মানুষের মনে শান্তি বর্ষিত হোক, 
অশান্ত বিশ্বে শান্তি ফিরে আসুক। 
জগতের সকল প্রাণী সুখী হোক।

সাধু-সাধু-সাধু। 

Comments

Popular posts from this blog

জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ কি জেনে রাখুন।

ফেসবুক বা অনলাইনে হয়রানির শিকার হলে কি করবেন।

দুঃখ সত্যকে প্রজ্ঞার চোখে জানা।